৯ বছরের সংসার ভাঙলো অপূর্বর, অবশেষে মুখ খুললেন অভিনেত্রী তিশা

25

শোবিজ জগতের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও নাজিয়া হাসান অদিতির বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে তোলপাড় চলছে। দীর্ঘ ৯ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি টেনেছেন তারা। গতকাল ১৭ মে বিষয়টি প্রকাশ্যে আনেন অদিতি। পরবর্তীতে ফেসবুক স্ট্যাটাসের মাধ্যমে বিচ্ছেদের বিষয়টি স্বীকার করেন অপূর্বও।

এদিকে মিডিয়ার গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে এক অভিনেত্রীর সঙ্গে অপূর্বর সম্পর্কের কারণেই নাকি এই ডিভোর্স হয়েছে। সেখানে অপূর্বর সঙ্গে অভিনেত্রী তানজিন তিশার নামটি ভেসে আসে।

এদিকে এমন গুজবে কান না দিতে আহ্বান জানিয়েছেন তানজিন তিশা। এমনকি গুজব যারা ছড়াবেন তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেবেন বলেও হুমকি দিয়েছেন তিনি। এর আগে একই হুঁশিয়ারি দেন অপূর্ব।

সোমবার ভোরে নিজের ফেরিফাইড ফেসবুক পেজে এক পোস্টে তানজিন তিশা লিখেছেন, ‘আমি সাধারণত গুজবে সাড়া দিই না। তবে আজ আমি অনুভব করছি যে, কয়েকটি অনলাইন সংবাদপত্রে প্রকাশিত চলমান গসিপ বন্ধ করা উচিত। দয়া করে আমার নামটি ব্যাবহার করবেন না। এতে আমারসহ শিল্পী এবং তার পরিবারের চলমান পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে। আমি সত্যিকার অর্থে বিশ্বাস করি যে, কেউ আমার খ্যাতি কুখ্যাতে ইচ্ছাকৃতভাবে এটি তৈরি করছে।’

ভক্ত এবং শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে অনুরোধ করে তিশা বলেন, ‘দয়া করে এমন খবরে বিশ্বাস করবেন না, যার কোনও সত্যতা নেই। আমি আপনাদের সবাইকে অনুরোধ করছি যেন এই গুজবে আর ভাগ না বসিয়ে এবং ছড়িয়ে না দেন। কারণ, ভুয়া খবর ছড়িয়ে দেয়াও একটি সাইবার অপরাধ।’

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিশা বলেন, ‘অনুরোধ করছি আপনাকে এই ধরনের ভিত্তিহীন গল্পে আমার নাম উল্লেখ না করার। যারা এই কাজটি চালিয়ে যাবেন তাদের আমার শেষ থেকেই আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।’

এদিকে রবিবার রাতে ফেইসবুক পোস্টে অপূর্ব লেখেন, “অত্যন্ত সম্মানের সাথে জানাচ্ছি আমি এবং আমার স্ত্রী অদিতি অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ সমাধানের মধ্য দিয়ে আমাদের সম্পর্কের আইনগতভাবে ইতি টেনেছি। কোন সংবাদমাধ্যম এই ব্যাপারটাতে তৃতীয় কাউকে জড়িয়ে কোন ধরনের ভুল সংবাদ প্রকাশ করলে আমি তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আইনগত ব্যবস্থা নিব।”

প্রসঙ্গত, অপূর্ব ২০১০ সালের ১৮ আগস্ট ভালোবেসে বিয়ে করেন মডেল-অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভাকে। কিন্তু বছর না ঘুরতেই ২০১১ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি প্রভার সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ করেন। এরপর ২০১১ সালের ২১ ডিসেম্বর নাজিয়া হাসান অদিতির সঙ্গে দ্বিতীয় সংসার জীবন শুরু করেন অপূর্ব। তাদের ঘরে জায়ান ফারুক আয়াশ নামে এক পুত্র রয়েছে।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

WP Twitter Auto Publish Powered By : XYZScripts.com